আজ- বৃহস্পতিবার, ২৮শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৪ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

এবার ট্রাম্পকে ডিভোর্স দিচ্ছেন তৃতীয় স্ত্রী মেলানিয়া!

সময়টা যেন কিছুতেই ভাল যাচ্ছে না বিদায়ী মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের। প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে হেরে গিয়েছেন ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেনের‌‌ ‌কাছে। এই পরিস্থিতিতে এবার সংসারও নাকি ভাঙতে চলেছে ট্রাম্পের।

প্রেসিডেন্ট পদের মেয়াদ শেষ হলেই স্ত্রী ফারস্ত মেলানিয়া ট্রাম্প তাকে ডিভোর্স দেবেন বলে জোর জল্পনা-কল্পনা শুরু হয়েছে। এখন কেবল অপেক্ষা করছেন স্ত্রী মেলানিয়া। রোববার (৮ নভেম্বর) ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম ডেইলি মেইলে এমন সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, মেয়াদ শেষ হলেই ট্রাম্পকে হোয়াইট হাউস ছাড়তে হবে। আর হোয়াইট হাউস ছাড়ার পরপরই মেলানিয়া ট্রাম্প ৭৪ বছর বয়সী স্বামীকে ডিভোর্স দেবেন।

প্রতিবেদনটিতে একদা ট্রাম্পের সহকারী ওমারোসা মানিগল্ট নিউম্যানের বক্তব্যকে উদ্ধৃত করে বলা হয়, এখন ট্রাম্পের প্রেসিডেন্টের মেয়াদ শেষ হওয়ার অপেক্ষায় রয়েছেন মেলানিয়া। হোয়াইট হাউস থেকে ট্রাম্প বিদায় নিলেই মেলানিয়া ১৫ বছরের সম্পর্কে ইতি টানবেন।

প্রতিবেদনে একদা ট্রাম্পের সহকারী ওমারোসা মানিগল্ট নিউম্যানের বক্তব্যকে উদ্ধৃত করে বলা হয়, এখন ট্রাম্পের প্রেসিডেন্টের মেয়াদ শেষ হওয়ার অপেক্ষায় রয়েছেন মেলানিয়া। হোয়াইট হাউস থেকে ট্রাম্প বিদায় নিলেই মেলানিয়া ১৫ বছরের সম্পর্কে ইতি টানবেন।

একই রকম দাবি করেছেন মেলানিয়া ট্রাম্পের সাবেক পরামর্শদাতা স্টেফানি ওয়ালকফেরও। তিনি বলেন, দু’জনের বিচ্ছেদ এখন সময়ের অপেক্ষা মাত্র। কাউন্টডাউন শুরু করে দিয়েছেন মেলানিয়া। হোয়াইট হাউসে ইতিমধ্যেই তাদের শয়নকক্ষও আলাদা হয়েছে। কথাও হয় না বললেই চলে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, প্রেসিডেন্ট থাকা অবস্থায় ডিভোর্স দিলে ক্ষমতার অপব্যবহার করে ক্ষতি করতে পারবেন এমন আশঙ্কায় মেয়াদ শেষেই ট্রাম্পকে ডিভোর্স দেবেন মেলানিয়া।

পাশাপাশি ছেলে ব্যারন এবং তিনি যেন স্বামীর সম্পত্তির অংশ পান, সে জন্য একটি চুক্তি করার কথাও চিন্তা করছেন মেলানিয়া, এমনটাও প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়।

এবার ট্রাম্পকে ডিভোর্স দিচ্ছেন তৃতীয় স্ত্রী মেলানিয়া!

  • 0
    Shares
ট্রাম্প ও মেলানিয়া

অনলাইন ডেস্ক:

সময়টা যেন কিছুতেই ভাল যাচ্ছে না বিদায়ী মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের। প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে হেরে গিয়েছেন ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেনের‌‌ ‌কাছে। এই পরিস্থিতিতে এবার সংসারও নাকি ভাঙতে চলেছে ট্রাম্পের।

প্রেসিডেন্ট পদের মেয়াদ শেষ হলেই স্ত্রী ফারস্ত মেলানিয়া ট্রাম্প তাকে ডিভোর্স দেবেন বলে জোর জল্পনা-কল্পনা শুরু হয়েছে। এখন কেবল অপেক্ষা করছেন স্ত্রী মেলানিয়া। রোববার (৮ নভেম্বর) ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম ডেইলি মেইলে এমন সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, মেয়াদ শেষ হলেই ট্রাম্পকে হোয়াইট হাউস ছাড়তে হবে। আর হোয়াইট হাউস ছাড়ার পরপরই মেলানিয়া ট্রাম্প ৭৪ বছর বয়সী স্বামীকে ডিভোর্স দেবেন।

প্রতিবেদনটিতে একদা ট্রাম্পের সহকারী ওমারোসা মানিগল্ট নিউম্যানের বক্তব্যকে উদ্ধৃত করে বলা হয়, এখন ট্রাম্পের প্রেসিডেন্টের মেয়াদ শেষ হওয়ার অপেক্ষায় রয়েছেন মেলানিয়া। হোয়াইট হাউস থেকে ট্রাম্প বিদায় নিলেই মেলানিয়া ১৫ বছরের সম্পর্কে ইতি টানবেন।

Viral Video: Donald Trump slammed for 'calling Melania over by patting on  his leg dgtl - Anandabazar

প্রতিবেদনে একদা ট্রাম্পের সহকারী ওমারোসা মানিগল্ট নিউম্যানের বক্তব্যকে উদ্ধৃত করে বলা হয়, এখন ট্রাম্পের প্রেসিডেন্টের মেয়াদ শেষ হওয়ার অপেক্ষায় রয়েছেন মেলানিয়া। হোয়াইট হাউস থেকে ট্রাম্প বিদায় নিলেই মেলানিয়া ১৫ বছরের সম্পর্কে ইতি টানবেন।

একই রকম দাবি করেছেন মেলানিয়া ট্রাম্পের সাবেক পরামর্শদাতা স্টেফানি ওয়ালকফেরও। তিনি বলেন, দু’জনের বিচ্ছেদ এখন সময়ের অপেক্ষা মাত্র। কাউন্টডাউন শুরু করে দিয়েছেন মেলানিয়া। হোয়াইট হাউসে ইতিমধ্যেই তাদের শয়নকক্ষও আলাদা হয়েছে। কথাও হয় না বললেই চলে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, প্রেসিডেন্ট থাকা অবস্থায় ডিভোর্স দিলে ক্ষমতার অপব্যবহার করে ক্ষতি করতে পারবেন এমন আশঙ্কায় মেয়াদ শেষেই ট্রাম্পকে ডিভোর্স দেবেন মেলানিয়া।

পাশাপাশি ছেলে ব্যারন এবং তিনি যেন স্বামীর সম্পত্তির অংশ পান, সে জন্য একটি চুক্তি করার কথাও চিন্তা করছেন মেলানিয়া, এমনটাও প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়।

করোনা আক্রান্ত ট্রাম্প-মেলানিয়া | আন্তর্জাতিক | দেশ রূপান্তর

যুক্তরাষ্ট্রের ৪৬তম প্রেসিডেন্ট হিসেবে বাইডেনের নাম ঘোষণার পরপরই ট্রাম্প এক বিবৃতিতে বলেছেন, বিজয়ী হিসেবে ভুল করে দ্রুত ফল দেওয়া হচ্ছে। এখনো নির্বাচন শেষ হয়নি। যথাযথ ভোট গণনা না হওয়া পর্যন্ত তিনি বিশ্রাম নেবেন না।

উল্লেখ্য, ডোনাল্ড ট্রাম্প তিনবার বিয়ে করেছেন। স্ত্রীদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি পরিচিত ছিলেন তার প্রথম স্ত্রী- ইভানা জেলনিকোভা। তিনি ছিলেন চেক প্রজাতন্ত্রের একজন অ্যাথলিট, ফ্যাশন ডিজাইনার ও মডেল।

এই দম্পতির তিন সন্তান-ডোনাল্ড জুনিয়র, ইভাঙ্কা এবং এরিক। পরে ১৯৯০ সালে তাদের বিবাহ বিচ্ছেদ ঘটে যে যুদ্ধ আদালত পর্যন্ত গড়িয়েছিল।

পরে ১৯৯৩ সালে তিনি অভিনেত্রী মারলা মেপেলসকে বিয়ে করেন। তাদের এক কন্যা- টিফানি। এর ছ’বছর পর ১৯৯৯ সালে তাদের বিয়ে ভেঙে যায়।

এর পরে ২০০৫ সালে ফ্লোরিডায় একটি সমুদ্রসৈকতের রিসোর্টে তিনি তার বর্তমান স্ত্রী মেলানিয়া ক্নাউসকে বিয়ে করেন। তিনিও একজন মডেল। এই দম্পতির ঘরে এক ছেলে-ব্যারন উইলিয়াম ট্রাম্প।

elive

Read Previous

ক্রীড়াঙ্গনকে থামিয়েছিলেন ট্রাম্প, জাগাবেন বাইডেন

Read Next

জানুয়ারিতে মেডিকেল শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *