আজ- বৃহস্পতিবার, ২৮শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৪ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

সাত বছর পর বাগমারায় আ’লীগের সম্মেলন

আগামী ১৪ নভেম্বর শনিবার বাগমারা উপজেলায় ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। দীর্ঘ সাত বছর পর উপজেলা সদর ভবানীগঞ্জ নিউমার্কেটে অবস্থিত অডিটোরিয়ামে এই সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে।

ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন ঘিরে নতুন সাজে সজ্জিত হয়েছে উপজেলার বিভিন্ন বাজার ও রাস্তা-ঘাট। রাস্তার মোড়ে মোড়ে এখন শোভা পাচ্ছে রং বে রং এর তোরণ, ব্যানার, ফেস্টুন ও বিলবোর্ড। সম্মেলন উপলক্ষে উপজেলা আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে গ্রহণ করা হয়েছে ব্যাপক প্রস্তুতি। এদিকে উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন সফল করতে ইতিমধ্যেই শেষ হয়েছে ইউনিয়ন ও পৌর আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভা।

কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দদের শুভেচ্ছা জানাতে ও সম্মেলনকে প্রাণবন্ত করতে উপজেলাজুড়ে প্রায় শতাধিক তোরণ নির্মাণ করা হয়েছে। দলীয় সূত্রে জানা গেছে, এবারের উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন হবে স্বচ্ছ ও গণতান্ত্রিক। সম্মেলনে কেন্দ্রীয় ও জেলা আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতৃবৃন্দ উপস্থিত থাকবেন।

দীর্ঘ সাত বছর পর সম্মেলনের আয়োজন করায় এবারের বাগমারা উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন একটি ভিন্ন মাত্রা পেয়েছে। আওয়ামী লীগ ছাড়াও আপামর বাগমারাবাসীর কৌতূহল রয়েছে এই সম্মেলন কে ঘিরে। সভাপতি পদে সাংসদ ইঞ্জিনিয়র এনামুল হক ছাড়া অপর কোন প্রার্থীর নাম শোনা না গেলেও সাধারণ সম্পাদক পদে রয়েছেন একাধিক প্রার্থী।

আওয়ামী লীগের তৃণমূল নেতাকর্মীরা জানান, ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক ২০০৮ সালের ২৯ ডিসেম্বর নির্বাচনে জয়লাভ করে এমপি নির্বাচিত হওয়ার পর ২০১৩ সালে অনুষ্ঠিত সম্মেলনের মাধ্যমে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নির্বাচিত হয়েছিলেন। ওই সম্মেলনে তার প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন উপজেলা আ’লীগের সাবেক সভাপতি আব্দুস সোবহান চৌধুরী। এছাড়াও সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছিলেন সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান অ্যাড. জাকিরুল ইসলাম সান্টু।

এবারের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে সাধারণ সম্পাদক পদে ভবানীগঞ্জ পৌর আ’লীগের সভাপতি ও মেয়র আব্দুল মালেক মণ্ডল, উপজেলা কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা ভাইস-চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান আসাদ ও উপজেলা আ’লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ গোলাম সারওয়ার আবুল, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সিরাজ উদ্দিন সুরুজের নাম শোনা যাচ্ছে।

উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনকে ঘিরে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনা ছড়িয়ে পড়েছে। দলের বাইরের লোকজনের মাঝেও রয়েছে ব্যাপক কৌতুহল। দলীয় সমর্থক নিয়ে উপজেলার বিভিন্ন প্রান্তে প্রচার-প্রচারণা চালাচ্ছেন সাধারণ সম্পাদক প্রার্থীরা।

এ বিষয়ে উপজেলা আ’লীগের সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক এমপি বলেছেন, এবারের সম্মেলন হবে অনেক উন্নত অনেক বলিষ্ঠ সম্মেলন। গত ২০১৩ সালে আমরা যেটা করতে পারিনি। এবারের সম্মেলনে তৃণমূলের নেতৃত্ব প্রতিষ্ঠিত হবে। নতুন পুরাতন মিলে আমরা একটি চমৎকার কমিটি উপহার দিতে চাই। যারা মানুষ ও দেশের কল্যাণে কাজ করবে। তৃণমূলের মতামতকে প্রাধান্য দিয়ে একটি শক্তিশালী কমিটি উপহার দেয়ার মাধ্যমে বাগমারা উপজেলা আওয়ামী লীগকে একটি মডেল সংগঠন হিসাবে দাঁড় করতে সর্বাত্মক চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলাদেশ ও জননেত্রী শেখ হাসিনার উন্নত বাংলাদেশের স্বপ্ন বাস্তবায়নে কাজ করাই হবে এবারের সম্মেলনের মূল উদ্দেশ্য।

elive

Read Previous

৭ নভেম্বর ইতিহাসের কালো দিন: তথ্যমন্ত্রী

Read Next

বিভ্রান্তিমূলক তথ্য দিয়ে অস্থিতিশীল পরিবেশ তৈরির চেষ্টা হচ্ছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *